আল্লাহ রাসুল (সঃ) ফরমানঃ নিশ্চয়ই তোমরা অতি শীঘ্রই তোমাদের প্রতিপালক কে দেখতে পাবে আকাশের চাঁদে।

আল্লাহর দেওয়া পুরস্কার পূর্নিমার চাঁদ বাবা দেওয়ানবাগী। সূরা হা-মীম সেজদাহ্‌ (فصّلت), আয়াত: ৫৩
سَنُرِيهِمْ ءَايَٰتِنَا فِى ٱلْءَافَاقِ وَفِىٓ أَنفُسِهِمْ حَتَّىٰ يَتَبَيَّنَ لَهُمْ أَنَّهُ ٱلْحَقُّ أَوَلَمْ يَكْفِ بِرَبِّكَ أَنَّهُۥ عَلَىٰ كُلِّ شَىْءٍ شَهِيدٌ

অর্থঃ- আল্লাহ্ অতি শীঘ্রই তোমাদেরকে তাঁর চেহারা মোবারক আকাশের পূর্ণিমার চাঁদে এবং তোমাদের ক্বালবের সপ্তম স্তর নাফসীর মাকামে দেখাবেন। ফলে মানুষের কাছে প্রমানিত হবে, তিনি যে আল্লাহ; নিশ্চয়ই ইহা সত্য।
আর সর্ব বিষয়ে সাক্ষী হিসাবে আপনার প্রতিপালকই যথেষ্ট।”

হযরত ইমাম মাহদী (আঃ)এর পরিচয় প্রকাশ পূর্নিমার চাঁদে
মোমেনগণ অতি শীঘ্রই দুনিয়াতে (পূর্নিমার চাঁদে) আল্লাহর চেহারা মোবারক দেখেতে পাবে, অতঃপর তাঁকে দেখে চিনতেও পারবে; এই বিষয়ে পবিত্র কোরআনে ২ আয়াত আর এই আয়াতের ব্যাখ্যায় ২৮ টা হাদিস বর্ণনা করেছেন। এরশাদ হচ্ছে-

“হে রাসূল (সঃ)! আপনি মানবজাতিকে বলে দিন- সকল প্রশংসা আল্লাহর জন্য, যিনি অতি শীঘ্রই তোমাদেরকে তাঁর নিদর্শন বা চেহারা মোবারক দেখাবেন! তখন তোমরা তাঁকে চিনতে পারবে। তোমরা যা কর তোমাদের প্রতিপালক সে সম্পর্কে গাফেল নন।
(সূরা- আন নামল-২৭: আয়াত-৯৩)

মহান আল্লাহ অতি শীঘ্রই আকাশের চাঁদে এবং মোমেন ব্যক্তির ক্বালবে তাঁর চেহারা মোবারক দেখাবেন; এরশাদ হচ্ছে-

“হে রাসূল (সাঃ) আপনি মানবজাতিকে বলেদিন- আল্লাহ শীঘ্রই তোমাদেরকে তাঁর চেহারা মোবারক উধোলোকে আকাশের (চাঁদে) এবং তোমাদের (ক্বালবের ৭ স্তর) নাফসীর মোকামে দেখাবেন। ফলে মানুষের কাছে প্রমাণিত হবে, তিনি যে আল্লাহ; নিশ্চই এটি সত্য। আর সর্ব বিষয়ের স্বাক্ষী হিসেবে আপনার প্রতিপালকই যাথষ্ট। (সূরা- হা মীম সাজদাহ- ৪১: আয়াত-৫৩)

হাদিসে বানী: হযরত আলী (রাঃ) বলেন- আল্লাহ্‌ এরশাদ করেন, ইমাম মাহাদী (আঃ)আমার আহলে বায়াত হতে আগমন করবেন।আল্লাহ তায়ালা এক রাতে (পূনিমার চাঁদের) ভিতর তার সত্যতা প্রমাণ করে দিবেন। (মুসনাদে আহমদ ১খঃ পৃ:-৪৪৪)

আল্লাহ রাসুল (সঃ) ফরমানঃনিশ্চয়ই তোমরা অতি শীঘ্রই তোমাদের প্রতিপালক (আল্লাহর চেহারা মোবারক) কে দেখতে পাবে আকাশের চাঁদে ও তোমাদের কালবে। (তিরমিযি শরীফ ২য় খঃপৃ:৮২ মেশকাত শরীফ পৃঃ২২০,৫০০)

হযরত জারীর ইবনে আব্দুল্লাহ (রাঃ) হতে বণনা করা হয়েছে -আল্লাহ রাসুল (সঃ) আরশাদ করেন-অতি শীঘ্রই তোমরা তোমাদের প্রতিপালকের চেহারা মোবারক (পূনিমার চাঁদে) দেখতে পাবে। (বুখারী শরীফ ১ম খঃপৃঃ৮১)

হযরত রাসুল (সঃ) এরশাদ করেন-তোমরা তোমাদর প্রতিপালক আল্লাহ চেহারা মোবারক দেখতে পাবে যেমন ভাবে এ পৃনিমার চাঁদকে দেখছ। (মুসলিম শরীফ,১ম খঃপৃঃ১০২ বুখারী শরীফ ২য় খঃপৃঃ৭১৯)

যেহেতু শেষ জামানায় হযরত ইমাম মাহদী (আঃ) মহান আল্লাহ নূরময় সত্তাকে স্বীয় ক্বালবে ধারন করবেন, সেহেতু পূর্ণিমার চাঁদে মাঝে আল্লাহ যখন নিজের চেহারা মোবারক প্রকাশ করবেন, তখন অনেকেই আল্লাহ নূরের চেহারা মোবারকের সাথে ইমাম মাহদী (আঃ)এর চেহারা মোবারকের মিল খোঁজে পাবেন। এই জন্য আল্লাহ সুরা নামল ৯৩ আয়াতে বলেছে দেখলে তোমরা চিনতে পারেবে। আর তখনই ইমাম মাহদী (আঃ) এর পরিচয় প্রকাশিত হবে।

Scroll to Top