৫ম বিশ্ব সূফী সম্মেলন ০৫-০২-১৯৯৩, সূফী সম্রাট হযরত দেওয়ানবাগী (মাঃআঃ) হুজুর।

৫ম বিশ্ব সূফী সম্মেলন ০৫-০২-১৯৯৩ ইং, সূফী সম্রাট হযরত দেওয়ানবাগী (মাঃ আঃ) হুজুর, হযরত রাসূল (সঃ)-এর সুমহান আদর্শ ও শিক্ষা তথা মোহাম্মদী ইসলাম পুনরুজ্জীবিত করে বিশ্বময় শান্তি প্রতিষ্ঠার গুরুদায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন, তিনি হলেন মহান সংস্কারক, মোহাম্মদী ইসলামের পূনর্জীবনদানকারী সূফী সম্রাট হযরত মাহবুব-এ-খোদা দেওয়ানবাগী (মাঃ আঃ) হুজুর কেবলাজান। তাঁর শিক্ষা অনুসরণের মাধ্যমে বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের কোটি কোটি মানুষ ক্বালবে আল্লাহ্র জ্বিকির জারি করে সুন্দর ও আদর্শ চরিত্রবান হয়ে আশেকে রাসূলে পরিণত হচ্ছেন।

5th World Sufi Conference 05-02-1993. The Sufi emperor Hazrat Dewanbagi (may Allah be pleased with him) decided to fight between Hazrat, Hazrat (SAW) -Surhman and others, who had achieved success, the end of the great God. Dewanbagi (Md. AH) Huzur Keblajan. His teachings will be sent from people from different countries around the world.

হযরত রাসূল (সঃ)-এর সুমহান আদর্শ ও শিক্ষা তথা মোহাম্মদী ইসলাম পুনরুজ্জীবিত করে বিশ্বময় শান্তি প্রতিষ্ঠার গুরুদায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন, তিনি হলেন মহান সংস্কারক, মোহাম্মদী ইসলামের পূনর্জীবনদানকারী সূফী সম্রাট হযরত মাহবুব-এ-খোদা দেওয়ানবাগী (মাঃ আঃ) হুজুর কেবলাজান। তাঁর শিক্ষা অনুসরণের মাধ্যমে বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের কোটি কোটি মানুষ ক্বালবে আল্লাহ্র জ্বিকির জারি করে সুন্দর ও আদর্শ চরিত্রবান হয়ে আশেকে রাসূলে পরিণত হচ্ছেন।

Hazrat Mahbub-e-Khoda Dewanbagi (MA) Huzur Keblajan, the great reformer, the Sufi emperor who revived Mohammadi Islam, is fulfilling the responsibility of establishing world peace by reviving the noble ideals and teachings of Hazrat Rasool (SAW) i.e. Mohammadi Islam. By following his teachings, crores of people from different countries of the world including Bangladesh are becoming beautiful and ideal characters by issuing Allah’s blessings and becoming Ashek Rasool.

১৯৭৫ খ্রিষ্টাব্দে তিনি তাঁর মোর্শেদের নির্দেশে সেনাবাহিনীর চাকুরীতে ইস্তফা দিয়ে মোর্শেদের দরবার শরীফে গমন করেন। ইমাম সৈয়দ আবুল ফজল সুলতান আহমত চন্দ্রপুরী (রহঃ) এর প্রধান খলিফা ও ওলামা মিশনের প্রধান হিসেবে তরীকা প্রচারের জন্য বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় ওয়াজ মাহফিল করেন। ঐ মাহফিলগুলোতে প্রায়শঃ বিভিন্ন রকম অলৌকিক ঘটনা সংঘটিত হতো এবং তাঁর ওয়াজ শুনে মুগ্ধ হয়ে হাজার হাজার লোক তরীকায় শামিল হতেন। এমনকি বহু অমুসলিম তাঁর সাহর্চযে এসে ইসলামরে ছায়াতলে আশ্রয় গ্রহণ করেনে। ধন্যবাদ

In 1975, he resigned from the army at the behest of Morshed and went to Morshed’s Durbar Sharif. Imam Syed Abul Fazl Sultan Ahmat as the Chief Caliph of Chandrapuri (RA) and the head of the Ulama Mission conducted Waz mahfils in different districts of Bangladesh to spread the teachings. In those gatherings, various miracles often took place, and thousands of people were fascinated by his sermons. Would have joined the way. Even many non-Muslims came to his company and took refuge in the shadow of Islam. Thanks

Scroll to Top